ব্রেকিং:
১২সেপ্টেম্বর থেকে পর্যটনস্পট নিলগিরি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দিবে কর্তৃপক্ষ। প্রতিশ্রুতি পূরণে আওয়ামী লীগ নেতাদের দায়িত্বশীল হতে হবে:শেখ হাসিনা শেখ হাসিনার সরকার মানুষকে শুধু স্বপ্ন দেখায় না,স্বপ্নকে বাস্তবায়ন:বীর বাহাদুর ইউএনও ওয়াহিদার সর্বোচ্চ চিকিৎসার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর আগস্টেও চমক রপ্তানি আয়ে ২০ পণ্যে ইতিবাচক প্রবৃদ্ধি সমন্বিতভাবে কাজ করায় এ বছর ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে : এলজিআরডি মন্ত্রী করোনার প্রভাবে দেশে খাদ্য সংকট হবে না : কৃষিমন্ত্রী সব ভূমিসেবা এক ছাদের নিচে আসছে শহরেও বাড়ছে সৌর বিদ্যুতের ব্যবহার করোনার মধ্যেও দ্রুত ঘুরে দাঁড়াতে সক্ষম হবো :অর্থমন্ত্রী সৌদিতে প্রবেশের অনুমতি পেল বাংলাদেশসহ ২৫ দেশ অপরাধী যেই হোক, আইনের আওতায় আনা হবে: কাদের হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার করা হবে : নৌ প্রতিমন্ত্রী চীনের চেয়েও বাংলাদেশের ব্রডব্যান্ড গতিশীল! বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের নেটওয়ার্কে আসছে সাগরে মাছ
  • মঙ্গলবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রহায়ণ ১৭ ১৪২৭

  • || ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

দৈনিক বান্দরবান
সর্বশেষ:
বান্দরবানে তহজিংডং এর কর্মশালা অনুষ্ঠিত বান্দরবান বন বিভাগের উদ্যোগে বি‌ভিন্ন শিক্ষা প্র‌তিষ্ঠা‌নে চারা বিতরণ সব দেশের সঙ্গে বাংলাদেশও ভ্যাকসিন পাবে শিক্ষার্থীদের অটো প্রমোশনের ইঙ্গিত দিলেন প্রধানমন্ত্রী ২১ শে আগস্ট ও বিএনপির ঐতিহাসিক বিচারহীনতার চরিত্র জরিপ অধিদপ্তরে `বঙ্গবন্ধু কর্নার` দেশে চীনের করোনা ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিল সরকার ডাইনামিক নেতৃত্ব দিয়ে চলেছেন শেখ হাসিনা মোশতাক-জিয়া চক্র জাতির বিবেককে কারারুদ্ধ করে রেখেছিল ॥ কাদের প্রধানমন্ত্রীর ৩১ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন আজ বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য বৃদ্ধির আগ্রহ যুক্তরাষ্ট্রের কুশীলবদের চিহ্নিত করতে কমিশন হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্রনীতিতেই রোহিঙ্গারা ফিরে যাবে সংশোধন হচ্ছে জাতীয় শিক্ষানীতি কাজ করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও গ্যাভি, বাংলাদেশ তিন কোটি ৪০ লাখ ভ্যাকসিন পাবে যুদ্ধবিধ্বস্ত স্বাধীন দেশের শিক্ষাব্যবস্থায় এক শিল্পীর ছোঁয়া ছয় দফা ছিল বঙ্গবন্ধুর একান্ত চিন্তার ফসল খুনিদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেওয়ায় বেগম জিয়াও অপরাধী : তথ্যমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পথ ধরেই দেশকে এগিয়ে নিতে চাই : প্রধানমন্ত্রী খালেদা নয়, তারেকের অবসর চায় বিএনপি মিয়ানমারের কূটনীতিককে কড়া জবাব দিলো বাংলাদেশ দেড় হাজার সাংবাদিক ১০ হাজার টাকা করে অনুদান পাবেন: তথ্যমন্ত্রী সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য টেলিমেডিসিন সেবা চালু সারাদেশে ৮ হাজার শেখ রাসেল কম্পিউটার ল্যাব গড়ে তোলা হয়েছে:পলক রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আইসোলেশন ও ট্রিটমেন্ট সেন্টার চালু জুলাইয়ে চীনের করোনার টিকার তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষা বাংলাদেশে হতে পারে শীর্ষেন্দুকে আশ্বস্ত করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী ‘স্বপ্ন সত্যি হলে এর চেয়ে আনন্দ আর কী’ যুক্তরাষ্ট্রের ‘গ্রেট প্লেস অ্যাওয়ার্ড’ পেল হাতিরঝিল প্রকল্প লন্ডনে বঙ্গবন্ধুর ৭ মাচের্র ঐতিহাসিক ভাষণ তিনটি ভাষায় অনুবাদের উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ হাই কমিশন। ভাষা তিনটি হচ্ছে—ওয়েলস, স্কটিশ ও আইরিশ। হাইকমিশনের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মঙ্গলবার (১০ মার্চ) এ কথা জানানো হয়। বঙ্গবন্ধু জাতীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়নশীপে বান্দরবান-নোয়াখালীর ম্যাচ ড্র নিজের ইচ্ছেমতো আর নয়, চিকিৎসকদের রোগী দেখার ফি নির্ধারণ করে দেবে সরকার........স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক আকাশ থেকে পদ্মাসেতুর ছবি তুললেন প্রধানমন্ত্রী পাহাড়ে সন্ত্রাস চাঁদাবাজি বন্ধে জিরো টলারেন্স দেখানো হবে:পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বীর বাহাদুরের আর্দশে অনুপ্রাণিত হয়ে বিএনপি ছেড়ে আওয়ামীলীগে যোগ দিল সোনাইছড়ির অর্ধ শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মী বান্দরবানে গাছ কাটতে গিয়ে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে একজনের মৃত্যু: বান্দরবানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট ১৮ এবং বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট প্রতিযোগিতার সমাপনী পার্বত্য জেলা বান্দরবান ৩০০ নং আসনে ৩ জন এমপি প্রার্থী আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৬ষ্ঠ বারের মত বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনীত সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী বীর বাহাদুর উশৈসিং কে পুনরায় নির্বাচিত করে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে বান্দরবান শহর শাখার ৪নং ওয়ার্ড পশ্চিম শাখা স্বেচ্ছাসেবক লীগ এর আয়োজনে বিশাল কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত শেখ হাসিনার সকারের সফলতায় বান্দরবানের রুমাতে পৌঁছে গেল নতুন বছরের নতুন বই বান্দরবানে নির্বাচনে মহাজোটেরমধ্যে আ:লীগ’র প্রার্থী থাকলে ও নেই জাপা আপীলে বৈধতা পেলেন বান্দরবানের বিএনপির মাম্যাচিং পার্বত্য এলাকার উন্নয়ন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও পাহাড়ের স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে হবে.............. বীর বাহাদুর উশৈসিং
১০৬

করোনাকালে ঋণ শোধে অনন্য কৃষক

দৈনিক বান্দরবান

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২০  

‘কৃষিঋণ আদায় বাড়ানোর বিষয়ে ব্যাংকগুলোর প্রতি চাপ নেই। বরং আমরা বিতরণ বাড়াতে চাপ দিচ্ছি। কৃষকদের মধ্যে সচেতনতা বাড়ায়, আদায় বাড়ছে।’

যখন বড় বড় ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ঋণ আদায়ে গলদঘর্ম অবস্থা ব্যাংকগুলোর, তখন ঋণ পরিশোধের অনন্য দৃষ্টান্ত তৈরি করে চলেছেন দেশের কৃষকরা।

করোনায় পুরো অর্থনীতি যেখানে বিপর্যস্ত, সেখানে চলতি অর্থবছরের প্রথম চার মাসে (জুলাই-অক্টোবর) ৮ হাজার ৪৫৭ কোটি টাকা ঋণ শোধ করেছেন তারা। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় আদায় বেড়েছে প্রায় ১ হাজার ৭০০ কোটি টাকা।

গত ২০১৯-২০ অর্থবছরের জুলাই-অক্টোবর সময়ে কৃষিঋণ আদায় হয়েছিল ৬ হাজার ৭৫৮ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ করা পরিসংখ্যান থেকে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কৃষিঋণ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. আবদুল হাকিম নিউজবাংলাকে বলেন, ‘কৃষিঋণ আদায় বাড়ানোর বিষয়ে ব্যাংকগুলোর প্রতি চাপ নেই। বরং আমরা বিতরণ বাড়াতে চাপ দিচ্ছি।‘

তার মতে, কৃষকদের মধ্যে সচেতনতা বাড়ায়, আদায় বাড়ছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর ও বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ নিউজবাংলাকে বলেন, ’কৃষকদেরকে ঋণ দিতে অনেক ব্যাংক অনীহা থাকে। কিন্তু এরা ঋণ ফেরতের দিক দিয়ে এগিয়ে। কারণ তারা ক্ষমতাহীন।

‘টাকা ফেরত না দিলে ঠিকেই বিপদে পড়বে। এই ভয়ে তারা টাকা দিয়ে দেয়। কিন্তু শিল্প খাতে বড় বড় ঋণ খেলাপি হয়ে যাচ্ছে। এগুলোর বেশির ভাগই জালজালিয়াতি করে টাকাগুলো বের করে নেয়া হয়েছে। এর অনেক শক্তিশালী। তফাতটা এখানেই।’

বন্যা কবলিত এলাকায় কৃষি ঋণ আদায় বন্ধ রাখার পরও, আদায়ের এ চিত্র নিঃসন্দেহে প্রসংশার দাবি রাখে।

চলতি বছরের ২৩ জুলাই বন্যা কবলিত এলাকায়, পরিস্থিতি উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত কৃষিঋণ আদায় স্থগিত রাখার নির্দেশ দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। চালু রাখতে বলা হয়, নতুন ঋণ বিতরণ কর্মসূচিও।

এ সময়ে নতুন করে ছয় হাজার ৬২৯ কোটি টাকা ঋণ পান কৃষকরা, যা বছরের লক্ষ্যমাত্রার ২৫ দশমিক ২২ শতাংশ। গত বছরের একই সময়ের চেয়ে টাকার অঙ্কে যা ৩১৮ কোটি টাকা বেশি।

চলতি অর্থবছরে ৫৯টি ব্যাংকের ২৬ হাজার ২৯২ কোটি টাকা কৃষিঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।

পরিসংখ্যান বলছে, চলতি বছরের জুলাই থেকে অক্টোবর পর্যন্ত শস্য উৎপাদনে তিন হাজার ৫৪৩ কোটি টাকা ঋণ বিতরণ করেছে ব্যাংকগুলো। পাশাপাশি সেচ যন্ত্র কিনতে ৫৬ কোটি টাকা, কৃষি যন্ত্রপাতি কিনতে ৪২ কোটি টাকা, পশুপাখি ও হাঁস মুরগি পালনে ১ হাজার ৬৫ কোটি টাকা, মাছ চাষে ৭২৪ কোটি টাকা, শস্য সংরক্ষণ ও বিপণনে ৪০ কোটি টাকা ঋণ দিয়েছে ব্যাংকগুলো।

এছাড়া দারিদ্র্য বিমোচন ও অন্যান্য খাতে পল্লি ঋণ বিতরণ হয়েছে এক হাজার ১৫৭ কোটি টাকা।

বর্তমানে ব্যাংক খাতে কৃষিঋণের স্থিতি বা পরিমাণ ৪৩ হাজার ৯১৩ কোটি টাকা। যার মধ্যে অক্টোবর পর্যন্ত ব্যাংক ছয় হাজার ৯০৬ কোটি টাকা। কৃষি খাতে খেলাপি ঋণ ৪ হাজার ৭৭৬ কোটি টাকা।

মূলধারার কৃষিঋণের পাশাপাশি বর্তমানে কৃষিখাতে চার শতাংশ সুদে প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায়ও কৃষিঋণ দিচ্ছে ব্যাংকগুলো। তবে এ খাতের ঋণ বিতরণে অগ্রগতি সন্তোষজনক নয়।

 

দৈনিক বান্দরবান
দৈনিক বান্দরবান
কৃষি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর