ব্রেকিং:
১২সেপ্টেম্বর থেকে পর্যটনস্পট নিলগিরি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দিবে কর্তৃপক্ষ। প্রতিশ্রুতি পূরণে আওয়ামী লীগ নেতাদের দায়িত্বশীল হতে হবে:শেখ হাসিনা শেখ হাসিনার সরকার মানুষকে শুধু স্বপ্ন দেখায় না,স্বপ্নকে বাস্তবায়ন:বীর বাহাদুর ইউএনও ওয়াহিদার সর্বোচ্চ চিকিৎসার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর আগস্টেও চমক রপ্তানি আয়ে ২০ পণ্যে ইতিবাচক প্রবৃদ্ধি সমন্বিতভাবে কাজ করায় এ বছর ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে : এলজিআরডি মন্ত্রী করোনার প্রভাবে দেশে খাদ্য সংকট হবে না : কৃষিমন্ত্রী সব ভূমিসেবা এক ছাদের নিচে আসছে শহরেও বাড়ছে সৌর বিদ্যুতের ব্যবহার করোনার মধ্যেও দ্রুত ঘুরে দাঁড়াতে সক্ষম হবো :অর্থমন্ত্রী সৌদিতে প্রবেশের অনুমতি পেল বাংলাদেশসহ ২৫ দেশ অপরাধী যেই হোক, আইনের আওতায় আনা হবে: কাদের হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার করা হবে : নৌ প্রতিমন্ত্রী চীনের চেয়েও বাংলাদেশের ব্রডব্যান্ড গতিশীল! বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের নেটওয়ার্কে আসছে সাগরে মাছ
  • মঙ্গলবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রহায়ণ ১৭ ১৪২৭

  • || ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

দৈনিক বান্দরবান
সর্বশেষ:
বান্দরবানে তহজিংডং এর কর্মশালা অনুষ্ঠিত বান্দরবান বন বিভাগের উদ্যোগে বি‌ভিন্ন শিক্ষা প্র‌তিষ্ঠা‌নে চারা বিতরণ সব দেশের সঙ্গে বাংলাদেশও ভ্যাকসিন পাবে শিক্ষার্থীদের অটো প্রমোশনের ইঙ্গিত দিলেন প্রধানমন্ত্রী ২১ শে আগস্ট ও বিএনপির ঐতিহাসিক বিচারহীনতার চরিত্র জরিপ অধিদপ্তরে `বঙ্গবন্ধু কর্নার` দেশে চীনের করোনা ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিল সরকার ডাইনামিক নেতৃত্ব দিয়ে চলেছেন শেখ হাসিনা মোশতাক-জিয়া চক্র জাতির বিবেককে কারারুদ্ধ করে রেখেছিল ॥ কাদের প্রধানমন্ত্রীর ৩১ উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন আজ বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য বৃদ্ধির আগ্রহ যুক্তরাষ্ট্রের কুশীলবদের চিহ্নিত করতে কমিশন হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্রনীতিতেই রোহিঙ্গারা ফিরে যাবে সংশোধন হচ্ছে জাতীয় শিক্ষানীতি কাজ করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও গ্যাভি, বাংলাদেশ তিন কোটি ৪০ লাখ ভ্যাকসিন পাবে যুদ্ধবিধ্বস্ত স্বাধীন দেশের শিক্ষাব্যবস্থায় এক শিল্পীর ছোঁয়া ছয় দফা ছিল বঙ্গবন্ধুর একান্ত চিন্তার ফসল খুনিদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেওয়ায় বেগম জিয়াও অপরাধী : তথ্যমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পথ ধরেই দেশকে এগিয়ে নিতে চাই : প্রধানমন্ত্রী খালেদা নয়, তারেকের অবসর চায় বিএনপি মিয়ানমারের কূটনীতিককে কড়া জবাব দিলো বাংলাদেশ দেড় হাজার সাংবাদিক ১০ হাজার টাকা করে অনুদান পাবেন: তথ্যমন্ত্রী সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য টেলিমেডিসিন সেবা চালু সারাদেশে ৮ হাজার শেখ রাসেল কম্পিউটার ল্যাব গড়ে তোলা হয়েছে:পলক রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আইসোলেশন ও ট্রিটমেন্ট সেন্টার চালু জুলাইয়ে চীনের করোনার টিকার তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষা বাংলাদেশে হতে পারে শীর্ষেন্দুকে আশ্বস্ত করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী ‘স্বপ্ন সত্যি হলে এর চেয়ে আনন্দ আর কী’ যুক্তরাষ্ট্রের ‘গ্রেট প্লেস অ্যাওয়ার্ড’ পেল হাতিরঝিল প্রকল্প লন্ডনে বঙ্গবন্ধুর ৭ মাচের্র ঐতিহাসিক ভাষণ তিনটি ভাষায় অনুবাদের উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ হাই কমিশন। ভাষা তিনটি হচ্ছে—ওয়েলস, স্কটিশ ও আইরিশ। হাইকমিশনের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মঙ্গলবার (১০ মার্চ) এ কথা জানানো হয়। বঙ্গবন্ধু জাতীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়নশীপে বান্দরবান-নোয়াখালীর ম্যাচ ড্র নিজের ইচ্ছেমতো আর নয়, চিকিৎসকদের রোগী দেখার ফি নির্ধারণ করে দেবে সরকার........স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক আকাশ থেকে পদ্মাসেতুর ছবি তুললেন প্রধানমন্ত্রী পাহাড়ে সন্ত্রাস চাঁদাবাজি বন্ধে জিরো টলারেন্স দেখানো হবে:পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বীর বাহাদুরের আর্দশে অনুপ্রাণিত হয়ে বিএনপি ছেড়ে আওয়ামীলীগে যোগ দিল সোনাইছড়ির অর্ধ শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মী বান্দরবানে গাছ কাটতে গিয়ে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে একজনের মৃত্যু: বান্দরবানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট ১৮ এবং বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট প্রতিযোগিতার সমাপনী পার্বত্য জেলা বান্দরবান ৩০০ নং আসনে ৩ জন এমপি প্রার্থী আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৬ষ্ঠ বারের মত বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনীত সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী বীর বাহাদুর উশৈসিং কে পুনরায় নির্বাচিত করে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে বান্দরবান শহর শাখার ৪নং ওয়ার্ড পশ্চিম শাখা স্বেচ্ছাসেবক লীগ এর আয়োজনে বিশাল কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত শেখ হাসিনার সকারের সফলতায় বান্দরবানের রুমাতে পৌঁছে গেল নতুন বছরের নতুন বই বান্দরবানে নির্বাচনে মহাজোটেরমধ্যে আ:লীগ’র প্রার্থী থাকলে ও নেই জাপা আপীলে বৈধতা পেলেন বান্দরবানের বিএনপির মাম্যাচিং পার্বত্য এলাকার উন্নয়ন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও পাহাড়ের স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে হবে.............. বীর বাহাদুর উশৈসিং
২৭৬

নিউইয়র্কের ‘সুপার হিরো’ বাংলাদেশি চিকিৎসকের গল্প

দৈনিক বান্দরবান

প্রকাশিত: ২ মে ২০২০  

করোনাভাইরাস বিশ্বকে এক নতুন বাস্তবতার মুখে ফেলে দিয়েছে। বিশ্বের কোনো দেশই এমন সংকটের জন্য প্রস্তুত ছিল না। সেটা হোক যুক্তরাষ্ট্রের মতো পরাক্রমশালী দেশ বা বাংলাদেশের মতো কোনো উন্নয়নশীল দেশ। তারপরও সারাবিশ্বে করোনাভাইরাস যে মানবিক সংকট তৈরি করেছে, তার বিরুদ্ধে ফ্রন্টলাইনের যোদ্ধা হিসেবে কাজ করছেন চিকিৎসকরা।

 

আর এই ফ্রন্টলাইনের যোদ্ধাদের অনেকে আবির্ভূত হয়েছেন মানবতার ত্রাতা হিসেবে। এমনই একজন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক প্রবাসী বাংলাদেশি ডাক্তার ফেরদৌস খন্দকার। বিশেষত নিউইয়র্কে যে বাংলাদেশিরা আছেন, তাদের কাছে এখন সবচেয়ে বড় আশা ও ভরসার প্রতীক ম্যানহাটনের প্রাচীনতম মাউন্ট সিনাই হাসপাতালের এই মেডিসিন বিশেষজ্ঞ।

করোনাভাইরাসের ভয়ে যেখানে বিশ্বের অনেক বাঘা বাঘা ডাক্তার তাদের চেম্বার বন্ধ করে অন্দরে ঢুকে গেছেন, যেখানে বাংলাদেশের মতো দেশে হাসপাতাল পর্যন্ত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে, সেখানে নিউইয়র্কের মতো মৃত্যুপুরীতে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ঘরে ঘরে গিয়ে করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন ডা. ফেরদৌস। নিউইয়র্কে যখন করোনা থাবা বসিয়েছে, তখন থেকে দিনের পর দিন এ সেবা দিয়ে যাচ্ছেন ফেরদৌস। চিকিৎসাবঞ্চিত করোনা আক্রান্ত রোগীরা তাই এই সম্মুখ যোদ্ধার নাম দিয়েছেন ‘ডক্টর অব হিউম্যানিটি’বা মানবতার চিকিৎসক।

এ বিষয়ে ডা. ফেরদৌস খন্দকার বলেন, গত চার সপ্তাহ প্রতিদিন ১৮ ঘণ্টা কাজ করছি। নিজের চাকরির পাশাপাশি ঘরে ঘরে গিয়ে রোগী দেখছি। আমার কাজ হলো, যদি ৫০ জনকেও সেবা দিয়ে হাসপাতালবিমুখ করে সুস্থ রাখতে পারি, তাহলে হাসপাতালের ওপর চাপ পড়বে না। এতে অনেক ইতিবাচক ফল দেখা যাবে।ferdousবাংলাদেশে পিপিই সংকটকে অজুহাত দেখিয়ে অনেক চিকিৎসকের সেবাবিমুখতার দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের চেয়েও যুক্তরাষ্ট্রে পিপিই সংকট বেশি। এখানে আমাকে একটা পিপিই দেয়া হয়েছে একদিনের জন্য। আমি পাঁচদিন পর গিয়ে আরেকটা পিপিই চেয়েছি। যখন বললাম পিপিই থেকে মরা মানুষের গন্ধ আসছে, তখন আমাকে আরেকটা দেয়া হয়। এ পরিস্থিতিতে কাজ করছি। উপায় না দেখে নিজের পিপিই নিজেই বানিয়েছি।

 

নিউইয়র্ক মৃত্যুপুরী হলেও যুক্তরাষ্ট্রের অনেক শহর ও অঙ্গরাজ্য থেকে প্লেনভর্তি হয়ে চিকিৎসকরা এখানে নিজ খরচে সেবা দিতে আসছেন জানিয়ে ডা. ফেরদৌস বলেন, ওই চিকিৎসকরা এখানে না এলেও পারতেন, তারা ঘুমাতে পারতেন অন্যদের মতো। কিন্তু তারা আসছেন নিজের খরচে, তারা আমাদের পেছনে দাঁড়িয়েছেন। এমন সংকটকালে মানবিকতাকে যদি নিজের স্কিলের সঙ্গে যোগ করতে না পারা যায়, তাহলে জীবনের শেষান্তে দেখা যাবে কিছু নেই।

নিউইয়র্কের বাসিন্দা কয়েকজন বাংলাদেশির সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, নিউইয়র্কে বিপুলসংখ্যক কাগজপত্রহীন অভিবাসী রয়েছেন। তাদের মধ্যে অনেক বাংলাদেশিও রয়েছেন। করোনাভাইরাস মহামারির এই সময়েও এসব কাগজপত্রহীন মানুষের জন্য যুক্তরাষ্ট্র সরকারের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের অর্থনৈতিক প্রণোদনা নেই। ফলে বিপুলসংখ্যক মানুষ সীমাহীন দুর্ভোগের মধ্যে পড়েছেন।

আর এই মহাদুর্যোগে তাই হাজারো ঝুঁকি মাথায় নিয়ে মানুষের পাশে, বিশেষত স্বদেশিদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বাংলাদেশের ডা. ফেরদৌস। দ্বারে দ্বারে গিয়ে বিপদাপন্ন মানুষকে সেবা দেয়ার পাশাপাশি ডা. ফেরদৌস করোনায় মৃত ব্যক্তির দাফনের খরচও দিচ্ছেন।

বিপদাপন্নদের খাবার ও অর্থ সাহায্য পৌঁছে দেয়ার জন্য ডা. ফেরদৌস গঠন করেছেন একটি স্বেচ্ছাসেবী দল। জ্যাকসন হাইটসে নিজের কার্যালয়ে স্থাপন করেছেন একটি কন্ট্রোল রুম। সেই রুম থেকে প্রত্যহ সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত চলছে নানা ধরনের সেবামূলক কাজ। ওই রুমের একটি ফোন নম্বর দেয়া হয়েছে সবার জন্য। সহায়তা চেয়ে অনেকে সেই ফোন নম্বরে যোগাযোগ করছেন। অনেকে এসে খাবার নিয়ে যাচ্ছেন। আবার বিপুলসংখ্যক মানুষকে বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাবার পৌঁছে দিতে হচ্ছে।

এ কাজে ডা. ফেরদৌসকে সহযোগিতা করছে বাংলাদেশ স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন। ডা. ফেরদৌসের স্ত্রী আঞ্জুমান আরা বেগম দিনা, দুই ছেলে আকিব খন্দকার ও নাকিব খন্দকারও প্রত্যক্ষ সহায়তা করছেন এ সেবামূলক কাজে। কাজ করে যাচ্ছেন তার স্বেচ্ছাসেবী দলের সদস্য আবু ইউসুফ টিটু, আবদুল্লাহ আল মারুফ এবং জুয়েল নূর।ferdousএমন মহৎপ্রাণ চিকিৎসকের এ ধরনের সেবার খবর কমিউনিটি ছাড়িয়ে ছড়িয়েছে নিউইয়র্কবাসীর মধ্যে। সেজন্য ভূয়সী প্রশংসায় ভাসছেন ডা. ফেরদৌস।

অনেকে বলছেন, হঠাৎ সারাবিশ্বকে কাঁপিয়ে দেয়া করোনার কারণে সারাবিশ্বেই চিকিৎসকদের ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জামের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের মতো উন্নত দেশও চিকিৎসকদের পিপিই দিতে পারছে না। সেখানে বাংলাদেশসহ উন্নয়নশীল দেশ এই সংকটের বাইরে থাকবে, এমনটা ভাবা যায় না। কোথাও কোথাও পিপিই বা সামগ্রী না পাওয়ার বিষয়টিকে অজুহাত বানিয়ে অনেক চিকিৎসক তার সেবা কার্যক্রম থেকে আড়ালে চলে গেলেও ডা. ফেরদৌস জীবনের ঝুঁকি নিয়েই যাচ্ছেন দ্বারে দ্বারে। ঘুরছেন মৃত্যুপুরী নিউইয়র্কে স্বদেশিদের আশার আলো হয়ে।

রীতিমত ‘সুপার হিরো’ বনে যাওয়া ডা. ফেরদৌস খন্দকারকে নিয়ে নিউইয়র্কে বসবাসরত অনেক বাংলাদেশি বলছেন, এই চিকিৎসক শুধু কমিউনিটিরই নয়, সারা বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করেছেন এমন উন্নত জনপদে। তার জন্য বাংলাদেশি কমিউনিটি গর্বিত।

ডা. ফেরদৌস খন্দকার জানিয়েছেন, নিউইয়র্কে সেবা দেয়ার অভিজ্ঞতা যদি তার কাছ থেকে বাংলাদেশ নিতে চায়, তবে তিনি ঢাকায় আসতে চান । এ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক বলেন, বাংলাদেশ যদি মনে করে ফ্রন্টলাইন যোদ্ধার প্রয়োজন আমি আসবো।

দৈনিক বান্দরবান
দৈনিক বান্দরবান